শুক্রবার সরকারি হাসপাতালে ডাক্তার না থাকার পক্ষে স্বাস্থ্য মহাপরিচালকের সাফাই - বরিশালের খবর-Barishaler Khobor

বাংলাদেশ, ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রোববার, ২৪ অক্টোবর ২০২১

শুক্রবার সরকারি হাসপাতালে ডাক্তার না থাকার পক্ষে স্বাস্থ্য মহাপরিচালকের সাফাই - বরিশালের খবর-Barishaler Khobor

শুক্রবার সরকারি হাসপাতালে ডাক্তার না থাকার পক্ষে স্বাস্থ্য মহাপরিচালকের সাফাই

প্রকাশ: ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১১:১২ : অপরাহ্ণ

বরিশালের খবর ডেস্ক : শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সরকারি ছুটির দিনে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কোন বড় কিংবা মিডলেভেলের ডাক্তার থাকেন না। তারা বাইরে দুইবেলা প্রাইভেট প্রাকটিসে ব্যস্ত থাকেন শুক্রবার। এ কারনে সেবা থেকে বঞ্চিত হয় রোগীরা। এটা রেওয়াজে পরিনত হয়েছে শের-ই বাংলা মেডিকেলে। এই রেওয়াজকে এবার অনেকটা প্রতিষ্ঠিত করে গেলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

বরিশালের শিল্পকলা একাডেমীতে সম্মিলিত কোভিড ব্যবস্থাপনা ‘বরিশাল মডেল’ শীর্ষক এক সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশগ্রহন শেষে শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্য মহাপরিচালক বলেন, শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) হাসপাতালে ডাক্তার থাকেনা- কথাটা ঠিক নয়। শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) জুনিয়র ডাক্তাররা থাকে। সিনিয়র ডাক্তারা অনকলে থাকবে। সিনিয়র ডাক্তাররা সারাক্ষন হাসপাতালে থাকবেনা। মিডলেভেলের ডাক্তারাও শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) হাসপাতালে থাকবেনা। ওইখানে থাকবে জুনিয়র ডাক্তাররা। যারা ইন্টার্ন, যারা ট্রেনিং করছে তারা থাকবে সেখানে। কিন্তু অনকলে আসবেন ডাক্তাররা, যখন যাকে লাগবে তারা অনকলে আসবে। এটাই সারা দেশে চলছে। এ বিষয়ে অন্যান্য জায়গায়ও খোঁজ নিতে অনুরোধ করেন স্বাস্থ্য মহাপরিচালক।

এ সময় সেখানে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রনালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়া, বিভাগীয় কমিশনার মো. সাইফুল হাসান বাদল, স্বাস্থ্য বিভাগীয় পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস, শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. এইচএম সাইফুল ইসলাম, মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. মনিরুজ্জামান, জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার, সিভিল সার্জন ডা. মো. মনোয়ার হোসেন সহ বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসন এবং স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) হাসপাতালে ডাক্তার থাকবে না বলে স্বাস্থ্য মহাপরিচালকের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন বরিশাল সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) সভাপতি অধ্যাপক শাহ্ সাজেদা। তিনি বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের অনেক দুর্নীতি আছে। শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) হাসপাতালে ডাক্তার না থাকাও তার মধ্যে একটা দুর্নীতি। তিনি আরও বলেন, শের-ই বাংলা মেডিকেলের অনেক ডাক্তার শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বরিশালের বাইরে প্রাইভেট প্রাকটিস করতে যান। জরুরী হলে কিংবা অনকলে তারা আসবে কি করে। আগে ডাক্তাররা হাসপাতাল ফেলে অনেকটা লুকিয়ে বাইরে প্রাইভেট প্রাকটিস করতেন। তাদের মধ্যে ডর-ভয় থাকতো। এখন মহাপরিচালকের এই বক্তব্যে ডাক্তাররা আরও উৎসাহিত হবেন সরকারি বন্ধের দিন কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকতে। তাদের ভয়-ডর এখন কেটে যাবে। ডাক্তারদের পক্ষে এভাবে সাফাই গাওয়া তার সমিচীন হয়নি। তিনি মহাপরিচালকের ওই বক্তব্য প্রত্যাহার করে সার্বক্ষনিক হাসপাতালে ডাক্তার রাখার ঘোষনা দাবি করেন।

 

সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন

সকল নিউজ